Monday, August 24, 2009

এক বছর পর

গত রমজান প্রথম বারের মতন কাটিয়েছি দেশের বাইরে, ইতালিতে। ভাগ্যক্রমে এইবারের ছুটিটা এমন সময়েই পেলাম যে রোজা আর ঈদ দুইটাই ইনশাআল্লাহ দেশে কাটাতে পারবো। দেশের বাইরে প্রথম রমজান অবশ্য খুবই ভালো কেটেছে- আমার ইউনিতে সিনিয়র ভাইয়ারা এত্ত জোস- ইফতার নিয়ে কোন চিন্তাই করতে হয়নি। প্রথম রোজাতেই ইফতার পার্টি দিয়ে শুরু, তারপর নিয়মিত বিরতিতেই চলেছে। বুট, ছোলা, ভাজাপোড়া কোনটাই বাদ পড়েনি। যত যাই হোক, বাসায় আম্মুর হাতের ইফতারের কথা আলাদা, মানতেই হবে। যার যার বাসার ইফতার তার কাছে সবচাইতে ভালো লাগাটাই স্বাভাবিক। আর বাইরে তো এখানকার মতো হালিম, জিলাপি, বুন্দিয়া পাওয়া যায় না।
রোজার মধ্যে কাজকর্ম নিয়ে থাকলেই ভালো, সময়টা কেটে যায় ব্যস্ততাতে। কিন্তু এইবার তো আমার শুধু ছুটি, সারাদিন শুয়ে বসে, পেপার পড়ে কাটাতে হয় - একটু কষ্টই। মনে আছে ২০০৩ এর রোজার কথা, পুরো মাসটাই কাটিয়েছিলাম ওমেকাতে কোচিং করিয়ে - কখনো মালিবাগ, কখনো ফার্মগেট। দিনে পাঁচটা ক্লাস নিচ্ছি এমনও হয়েছে। গলা শুকিয়ে কাঠ হতো ঠিকই, কিন্তু সময়টা কাটতো দারুণ। একবার ভুল করে ফিল্টার থেকে পানিও খেয়ে ফেলছিলাম, এবং একদম গরম পানি! মুখে দেয়ার সাথে সাথেই অবশ্য "ডাবল ফল্ট" টের পেয়েছিলাম!

আহ, কি চমৎকার দিনগুলি ছিলো।

1 comment:

শাহান said...

আমার তো এইবারি প্রথম, আম্মুর ইফতারি মিস করতেছি খুব। রোজায় আরেকটা জিনিস মিস করি, সেইটা হইল রোজার এনভায়রনমেন্টটা ... বিকাল থেকেই চিল্লা-চিল্লি, হাঁক-ডাক, দৌড়াদৌড়ি ...